আজ ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ || ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
  বাজালিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠিত       খাগরিয়ার আবুল কালাম ওদিল মোহাম্মদ বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত       বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি রাউজান উপজেলা (দক্ষিণ) শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত       রাউজানের কেরানীহাট শিরিষতলায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রথমবারের মতো বর্ষবরণ অনুষ্ঠান       পটিয়ার পিঙ্গলায় বুখারী শরীফ অনুষ্ঠিত       বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে বাঁশখালী বখশী দীঘির পহেলা বৈশাখী মেলা সম্পন্ন       দক্ষিণ চট্টগ্রামের মধ্যপ্রাচ্যের সাথে মিল রেখে ৬০ গ্রামের বুধবার ঈদ       বিভিন্ন পেশাজীবির সাথে দৈনিক যায়যায়দিন মহেশখালী প্রতিনিধির ইফতার মাহফিল       সাতকানিয়া খাগরিয়া শফিকুল ইসলাম রাহী মাদ্রাসায় চন্দনাইশ প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন       চন্দনাইশে দক্ষিণ গাছবাড়িয়া সাহিত্যিক পাড়া প্রবাসী ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল    


স্বাস্থ্য কথা:
পাইলস বা অর্শ হলো মলদ্বারে এক ধরনের রোগ যেখানে রক্তনালীগুলো বড় হয়ে গিয়ে ভাসকুলার কুশন তৈরি করে। এটি অস্বস্তিকর এবং অসহনীয় একটি সমস্যা। শিশুসহ যে কোন বয়সের লোকই এ রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। এটি মলদ্বারের ভেতরে কিংবা বাইরেও হতে পারে। পাইলস হলে চুলকানি বা রক্তক্ষরণ হয়। লজ্জায় অনেকে বিষয়টিকে দীর্ঘদিন গোপন করে রাখে। ফলে ভুল চিকিৎসার শিকার হন যা স্থায়ী সমস্যা সৃষ্টি করে।

পাইলস কেন হয়, হলে কীভাবে বুঝবেন, কী করবেন, সংশ্লিষ্ট একাধিক চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আজ এ বিষয়ে আলোচনা করা হলো।

পাইলস কেন হয়:
এর সঠিক কারণ জানা না গেলেও নিম্নলিখিত বিষয়সমূহ অর্শ হওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখেঃ
১. দীর্ঘমেয়াদী কোষ্ঠকাঠিন্য বা ডায়রিয়া
২. শাকসবজি ও অন্যান্য আঁশযুক্ত খাবার এবং পানি কম খাওয়া
৩. শরীরের অতিরিক্ত ওজন
৪. গর্ভাবস্থা
৫. লিভার সিরোসিস
৬. মল ত্যাগে বেশী চাপ দেয়া
৭. অতিরিক্ত মাত্রায় লেকজেটিভ (মল নরমকারক ওষুধ)ব্যবহার করা বা এনেমা (শক্ত মল বের করার জন্য বিশেষ তরল মিশ্রণ ব্যবহার করা) গ্রহণ করা
৮. টয়লেটে বেশী সময় ব্যয় করা
৯. বৃদ্ধ বয়স
১০. পরিবারে কারও পাইলস থাকা
১১. পায়ুপথে যৌনমিলনে অভ্যস্ততা
১২. গর্ভাবস্থার শেষের দিকে অনেকের পাইলস রোগটি দেখা দেয়। শিশুর গ্রোথের সঙ্গে মলদ্বারে চাপ পড়লে নারীর পাইলস হতে পারে।
১৩. ফ্যাটি ও হাই প্লোটিনযুক্ত খাবার যেমন : গরুর মাংস, চিজ, মাখন, ফ্রাইড, চকোলেট, আইসক্রিম, কোমল পানীয় ইত্যাদি বেশি খেলে পাইলস হতে পারে।
১৪. ভার উত্তোলন, দীর্ঘ সময় বসে থাকা ইত্যাদি।

পাইলসের লক্ষণসমূহ:
i) মলদ্বারের অভ্যন্তরে হলে নিচের লক্ষণগুলো দেখা যেতে পারেঃ
১. পায়খানার সময় ব্যথাহীন রক্তপাত হওয়া
২. মলদ্বারের ফোলা বাইরে বের হয়ে আসতে পারে, নাও পারে। যদি বের হয় তবে তা নিজেই ভেতরে চলে যায় অথবা হাত দিয়ে ভেতরে ঢুকিয়ে দেয়া যায়। কখনও কখনও এমনও হতে পারে যে, বাইরে বের হওয়ার পর তা আর ভেতরে প্রবেশ করানো যায় না বা ভেতরে প্রবেশ করানো গেলেও তা আবার বের হয়ে আসে
৩. মলদ্বারে জ্বালাপোড়া, যন্ত্রণা বা চুলকানি হওয়া
৪. কোন কোন ক্ষেত্রে মলদ্বারে ব্যথাও হতে পারে।
ii) মলদ্বারের বাইরে হলে নিচের লক্ষণগুলো দেখা যেতে পারেঃ
১. মলদ্বারের বাইরে ফুলে যাওয়া যা হাত দিয়ে স্পর্শ ও অনুভব করা যায়।
২. কখনও কখনও রক্তপাত বা মলদ্বারে ব্যথাও হতে পারে।

কখন ডাক্তার দেখাবেন
উপরোক্ত লক্ষণ ও উপসর্গ দেখা দেয়ামাত্র যেমন- পায়খানার রঙ কালো বা লালচে হলে এবং পায়খানার সাথে রক্ত গেলে এবং পায়ুপথের মুখে পায়খানার সময় বা পরে চাকা অনুভব করলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

এই ক্ষেত্রে দুই ধরণের চিকিৎসা পাওয়া যায়;
এলোপ্যাথিক ও হোমিওপ্যাথিক

পাইলস রোগে করণীয়:
১. কোষ্ঠকাঠিন্য যেন না হয় সে বিষয়ে সতর্ক থাকা এবং নিয়মিত মলত্যাগ করা
২. পর্যাপ্ত পরিমাণে শাকসবজি ও অন্যান্য আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া এবং পানি(প্রতিদিন ৮-১০ গ্লাস) পান করা
৩. সহনীয় মাত্রার অধিক পরিশ্রম না করা
৪. প্রতিদিন ৬-৮ ঘন্টা ঘুমানো
৫. শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ করা
৬. টয়লেটে অধিক সময় ব্যয় না করা
৭. সহজে হজম হয় এমন খাবার গ্রহণ করা
৮. ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া লেকজেটিভ বেশি গ্রহণ না করা
৯. মল ত্যাগে বেশি চাপ না দেওয়া
১০. দীর্ঘমেয়াদী ডায়রিয়া থাকলে তার চিকিৎসা নেয়া।

পাইলস রোগে গ্রহণীয় কিছু খাবার:
শাকসবজি, ফলমূল, সব ধরণের ডাল, সালাদ, দধি, পনির, গাজর, মিষ্টি কুমড়া, লেবু ও এ জাতীয় টক ফল, পাকা পেপে, বেল, আপেল, কমলা, খেজুর, ডিম, মাছ, মুরগীর মাংস, ভূসিযুক্ত (ঢেঁকি ছাঁটা) চাল ও আটা ইত্যাদি।

পাইলস রোগে বর্জনীয় কিছু খাবার:
খোসাহীন শস্য, গরু, খাসি ও অন্যান্য চর্বিযুক্ত খাবার, মসৃণ চাল, কলে ছাঁটা আটা, ময়দা, চা, কফি, চীজ, মাখন, চকোলেট, আইসক্রীম, কোমল পানীয়, সব ধরণের ভাজা খাবার যেমনঃ পরোটা, লুচি, চিপস ইত্যাদি।





বাজালিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠিত

খাগরিয়ার আবুল কালাম ওদিল মোহাম্মদ বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি রাউজান উপজেলা (দক্ষিণ) শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

রাউজানের কেরানীহাট শিরিষতলায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রথমবারের মতো বর্ষবরণ অনুষ্ঠান

পটিয়ার পিঙ্গলায় বুখারী শরীফ অনুষ্ঠিত

বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে বাঁশখালী বখশী দীঘির পহেলা বৈশাখী মেলা সম্পন্ন

দক্ষিণ চট্টগ্রামের মধ্যপ্রাচ্যের সাথে মিল রেখে ৬০ গ্রামের বুধবার ঈদ

বিভিন্ন পেশাজীবির সাথে দৈনিক যায়যায়দিন মহেশখালী প্রতিনিধির ইফতার মাহফিল

সাতকানিয়া খাগরিয়া শফিকুল ইসলাম রাহী মাদ্রাসায় চন্দনাইশ প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

চন্দনাইশে দক্ষিণ গাছবাড়িয়া সাহিত্যিক পাড়া প্রবাসী ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল

চট্টগ্রাম রাঙ্গুনিয়ার অধিবাসী মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির ইবনে মোহাম্মদ

বাঁশখালীতে ১৪ বছরের মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে পালাক্রমে ধর্ষন- ৪ ধর্ষক গ্রেপ্তার

সাতকানিয়ার এসএসসি পরীক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌসকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

বাশঁখালীতে এস.এস.সি পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে ভুয়া শিক্ষক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ১৫ টি ঘরে আগুন

আগামী ৩ মাসের বিদ্যুৎ, পানি ও গ্যাস বিল মওকুফের দাবী বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের

দোহাজারী সাঙ্গু নদী থেকে আলম নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার

চন্দনাইশে এক গৃহবধুর রহস্য জনক মৃত্যু, পরিবারের দাবি পরিকল্পিত হত্যা।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য মনোনীত হলেন সাংসদ নজরুল ইসলাম চৌধুরী

বাঁশখালীতে গণ ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি মজিদ বন্দুক যুদ্ধে নিহত